Category Archives: ইলম – জ্ঞান

বহু আলেম রয়েছেন যারা কেবল বইয়ের জগতে বাস করেন

“বহু ‘আলেম বা শায়েখ রয়েছেন যারা বইয়ের জগতে বাস করেন, কিন্তু বাস্তব জগতে তাদের আনাগোনা নেই। তারা বাস্তবতার যে ধ্যানধারণা (ফিক্‌হুল ওয়াকি’) তা থেকে অনুপস্থিত, বরং বলতে পারেন বাস্তবের ধ্যানধারণা তাদের কাছ থেকে অনুপস্থিত। কেননা এনারা জীবনের বইটাকে খুলে দেখেন না, যেভাবে তারা পূর্ববর্তী ‘আলেমদের বই আদ্যোপান্ত পড়েন। এ কারণে তাদের কাছ থেকে এমন সব ফাতওয়া বের হয় যা (শুনলে) মনে হয় যেন এগুলোকে কবর থেকে উঠিয়ে আনা হয়েছে।”

[ইমাম য়ূসুফ আল-কারাদাওয়ী:’মূজিবাত তাগায়্যুরিল-ফাতওয়া ফী ‘আসরিনা’; পৃ: ৮৫]

Advertisements

জ্ঞানচর্চা যেন ভুল নিয়াতের কারণে ঈমান ধ্বংসের কারণ না হয়

“ইলম ও জ্ঞানচর্চার দ্বারা যদি তোমার উদ্দেশ্য হয়ে থাকে আত্মগৌরব ও বড়াই-অহংকার করা, সমকালীন লোকদের উপর প্রাধান্য বিস্তার করা, আপন প্রভাব ও প্রতিপত্তি প্রতিষ্ঠা করা, বিশ্ববাসীর নিকট প্রিয়পাত্র অথবা ভক্তিভাজন হওয়া, পার্থিব গৌরব অর্জন করা এবং রকমারী ধন-সম্পদ কুক্ষিগত করা, তাহলে জেনে রাখো– এই জ্ঞান অর্জনের দ্বারা তুমি তোমার দ্বীন ও ঈমান ধ্বংস করছ, স্বীয় মূল্যবান জীবন বিনষ্ট করছ। নশ্বর এই পৃথিবীর বিনিময়ে আখিরাতের অনন্ত জীবনকে বিক্রয় করে দিচ্ছ। নিঃসন্দেহে এটা অত্যন্ত গর্হিত ও ক্ষতিকর কাজ। এই ব্যবসায় তোমার বৃহৎ লোকসান ছাড়া লাভের কিছু অবশিষ্ট থাকছে না।”

— ইমাম আল-গাজ্জালী (রাহিমাহুল্লাহ)

[বিদায়াতুল হিদায়াহ : ইমাম আল-গাজ্জালী , প্রকাশক: দারুল কিতাব, পৃ-১১]​

দ্বীনি ইলমই হচ্ছে একমাত্র বিদ্যা যা অন্তরে খোদাভীতি সৃষ্টি করবে

“দ্বীনি ইলমই হচ্ছে একমাত্র বিদ্যা যা তোমার অন্তরে খোদাভীতি সৃষ্টি করবে, নিজের দোষ-ত্রুটি উপলব্ধি করার জ্ঞান বাড়াবে, সৃষ্টিকর্তা ও পালনকর্তার পরিচয় করিয়ে দিবে। দুনিয়ার মোহান্ধতা হ্রাস করে আখিরাতের প্রতি শওক ও আগ্রহ বৃদ্ধি করবে, পাপকার্যের কুফল সম্পর্কে ওয়াকিবহাল করবে। ফলে, পাপাচার থেকে বেঁচে থাকার মন-মানসিকতা গড়ে উঠবে, শয়তানের ধোঁকা ও প্রতারণা সম্পর্কে সতর্ক করবে।”

— ইমাম আবু হামিদ আল গাজ্জালী (রাহিমাহুল্লাহ)

[বিদায়াতুল হিদায়াহ : ইমাম আল-গাজ্জালী , প্রকাশক: দারুল কিতাব, পৃ-৪৬]

আপনারই জ্ঞানের দিকে এগিয়ে যাওয়া উচিত

“‘ইলম (জ্ঞান) আপনার কাছে এগিয়ে আসার কথা নয়, বরং আপনারই ‘ইলমের (জ্ঞানের) দিকে এগিয়ে যাওয়া উচিত।”

— ইমাম মালিক ইবনে আনাস

[আদাব শারি’ইয়্যাহ, ২/১৪৪]

আল্লাহ আদমের শ্রেষ্ঠত্বের প্রকাশ করেছিলেন জ্ঞানের মাধ্যমে

“আল্লাহ আদমের শ্রেষ্ঠত্বের প্রকাশ করেছিলেন ‘ইলমের (জ্ঞানের) মাধ্যমে। বান্দা যেসব মহৎ গুণাবলী ধারণ করতে পারে সেগুলোর মধ্যে ‘ইলম অন্যতম।”

— শাইখ আবদুর-রহমান আস-সাদী

[তাইসির-উল-কারিম, পৃ ৪৯]

ইলম তাদের জন্যই উপলভ্য রয়েছে যারা এটাকে খুঁজে পেতে চায়

“জ্ঞান (‘ইলম) হলো তীরবিহীন এক সমুদ্র যা গোটা উম্মাহর মাঝে বন্টন করে দেয়া হয়েছে। ‘ইলম তাদের জন্যই উপলভ্য রয়েছে যারা এটাকে খুঁজে পেতে চায়।”

— ইমাম আয-যাহাবী (রাহিমাহুল্লাহ)

[সিয়ার আ’লাম আন-নুবালা, ৬৮/১২]

খারাপ স্মৃতিশক্তি থেকে উত্তরণের সমাধান

বর্ণিত আছে, আল-শাফা’ই (রাহিমাহুল্লাহ) বলেন:

“আমি (আমার শাইখ) ওয়াকীকে আমার খারাপ স্মৃতিশক্তির ব্যাপারে অভিযোগ করেছিলাম এবং তিনি শিখিয়েছিলেন আমি যেন পাপকাজ থেকে নিজেকে দূরে রাখি।

তিনি বলেন, আল্লাহর জ্ঞান হলো একটি আলো এবং আল্লাহর আলো কোন পাপচারীকে দান করা হয় না।”

[শাইখ মুহাম্মাদ সালিহ আল মুনাজ্জিদ, ইসলামকিউএ/৩৩২৮]

স্মৃতিকে শক্তিশালী করতে পারে তা হলো পাপ করা ছেড়ে দেয়া

আল-খাতীব তার​ আল-জামী(২/৩৮৭) গ্রন্থে ​বর্ণনা করেন যে ইয়াহইয়া বিন ইয়াহইয়া বলেন:

“এক ব্যক্তি মালিক ইবনে আনাসকে প্রশ্ন করেছিলেন, “হে আবদ-আল্লাহ, আমার স্মৃতিশক্তিকে শক্তিশালী করে দিতে পারে এমন কোন কিছু কি আছে? তিনি বলেন, যদি কোন কিছু স্মৃতিকে শক্তিশালী করতে পারে তা হলো পাপ করা ছেড়ে দেয়া।” ​

[শাইখ মুহাম্মাদ সালিহ আল মুনাজ্জিদ, ইসলামকিউএ/৩৩২৮]

প্রাসাদের চেয়ে বই অনেক বেশি উত্তম

“আমার কাছে রাজা-বাদশাহদের প্রাসাদের চেয়ে বই অনেক বেশি উত্তম।”

— শাইখ হামাদ আল-আনসারি

[আল-মাজমু, ১/৩৯৫]

হাসিঠাট্টা আর খেলার সাথে জ্ঞানকে মিশ্রিত করো না

“জ্ঞান অর্জন করো। যখন তুমি জ্ঞানার্জন করবে, তখন তা দৃঢ়ভাবে ধরে রাখ এবং তাকে পালাতে দিয়ো না। হাসিঠাট্টা আর খেলার সাথে জ্ঞানকে মিশ্রিত করো না; নইলে তোমার হৃদয় তার ভেতর থেকে তোমার অর্জিত জ্ঞানকে উগড়ে ফেলে দেবে।”

— সুফিয়ান আস-সাওরি (রাহিমাহুল্লাহ)

[বায়োগ্রাফি অফ সুফিয়ান আস-সাওরি, পৃ ১৫২]

জ্ঞানার্জনের ধাপসমূহ

“জ্ঞানের প্রথম ধাপ হলো শোনা, এরপর নিশ্চুপ থাকা এবং মনোযোগী হওয়া। এরপরের ধাপগুলো হলো সেটিকে সংরক্ষণ করা, কাজে পরিণত করা এবং তারপরের ধাপ হলো সেটিকে প্রচার করা।”

— সুফিয়ান ইবনে উইয়াইনাহ

[হিলইয়াহ আউলিয়া, ৩/২৮৩]

কাপড়ের উপরে কালি হলো আলেমদের জন্য সুগন্ধির ন্যায়

আবদুল্লাহ ইবনে আল-মুবারাক বলেন:

“কাপড়ের উপরে কালি হলো আলেমদের জন্য সুগন্ধির ন্যায়।”

[আল-খাতিব আল-বাগদাদী, আল-জামি লি’আখলাক আল-রাওয়ি, অনুচ্ছেদ: ৫০৯]

যে ব্যক্তি জ্ঞান ছাড়াই আমল করে সে উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশি করে

“যে ব্যক্তি জ্ঞান ছাড়াই আমল করে সে উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশি করে।”

— উমার বিন আবদিল-আযীয

[মুসান্নাফ ইবনে আবি শাইবাহ,১৩/৪৭০]

আপনার মনের শক্তি হলো জ্ঞান

“আপনার মনের শক্তি হলো জ্ঞান; আপনার হৃদয়ের শক্তি হলো ভালোবাসা।”

— তারিক রমাদান

[অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ, ২৩/০২/১৪]

বই পড়ে আমি কখনো পরিতৃপ্ত হই না

“বই পড়ে আমি কখনো পরিতৃপ্ত হই না। আমি যখন কোন বই প্রথমবারের মতন দেখি, আমার কাছে মনে হয় আমি যেন সম্পদের একটি ভান্ডার দেখছি। আমি ২০ হাজারটির চেয়েও বেশি ভলিউম পড়েছি এবং আমি এখনো পড়ছি।”

— ইমাম ইবনে আল-জাওযি (রাহিমাহুল্লাহ)

[আদাব শারি’ইয়্যাহ, ২/৩৭৪]

জ্ঞান নিয়ে উমারের সতর্কতা

উতবান ইবনে মুসলিম (রা) বলেন যে, একবার তিনি ৩০ মাস উমার বিন খাত্তাবের (রাদিয়াল্লাহু আনহু) সঙ্গী ছিলেন। সে সময় উমারকে (রা) বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হয় এবং তিনি প্রায়ই বলতেন যে, তিনি জানেন না।

[ইসলামী পুনর্জাগরণ সমস্যা ও সম্ভাবনা, পৃ-১২৪]

সাহাবীদের প্রত্যেকের কাছে জ্ঞান সঞ্চিত ছিলো

ইমাম মালিক (রাহিমাহুল্লাহ) আবু জাফরকে (রাহিমাহুল্লাহ) বলেন:

“রাসূলুল্লাহর (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) সাহাবীরা বিভিন্ন দূরবর্তী অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছিলেন, প্রত্যেকের কাছে জ্ঞান সঞ্চিত ছিলো। তুমি যদি একটি মত অনুসরণে জবরদস্তি করো তাহলে ফিতনা সৃষ্টি করবে।”

[ইসলামী পুনর্জাগরণ সমস্যা ও সম্ভাবনা, ড. ইউসুফ আল-কারাদাওয়ি, পৃ-১০২]

সাহাবায়ে কিরামের মতানৈক্য রহমতস্বরূপ

“আমি কখনোই কামনা করিনি যে সাহাবায়ে কিরামের মধ্যে মতানৈক্য না থাক। তাদের মতানৈক্য রহমতস্বরূপ।”

— উমার বিন আবদুল আজীজ (রাহিমাহুল্লাহ)

[ইসলামী পুনর্জাগরণ সমস্যা ও সম্ভাবনা, পৃ-৯৮]

কীসে একজন ব্যক্তির স্মৃতিকে প্রখর করে?

ইমাম বুখারীকে (রাহিমাহুল্লাহ) একবার প্রশ্ন করা হয়েছিলো, “কীসে একজন ব্যক্তির স্মৃতিকে প্রখর করে?”

তিনি উত্তর দিয়েছিলেন, “বইয়ের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত অবিরত পড়তে থাকা।”

[জামি ‘আল বায়ান আল-ইলম ওয়া ফাদলিহি]

জ্ঞান হলো এমন আলো যা আল্লাহ অন্তরের মাঝে স্থাপন করে দেন

“প্রচুর পরিমাণে আলোচনার মাঝে জ্ঞান নির্ভর করে না, বরং জ্ঞান হলো এমন আলো যা আল্লাহ অন্তরের মাঝে স্থাপন করে দেন।”

— ইমাম মালিক ইবনে আনাস (রাহিমাহুল্লাহ)

[আল-জামি লি আখলাক আর-রাওয়ি ওয়া আদাব আস-সামী, ২/১৭৪]

আমি যতই জ্ঞান অর্জন করি, আমার বিশ্বাস ততই দৃঢ় হয়

“আমি যতই জ্ঞান অর্জন করি, আমার বিশ্বাস ততই দৃঢ় হয়। আমি যতই শিখি, আমি ততই সুন্দর করে আল্লাহর ইবাদাত করতে পারি। কারণ, প্রকৃতপক্ষে সমস্ত জ্ঞানের মহাজ্ঞানী আল্লাহ। আমি জ্ঞানার্জনের মাধ্যমে যা করতে চাই তা হলো — তাঁর কাছে যাওয়া।”

-– ড. তারিক রমাদান

[যাইতুনা কলেজে আমন্ত্রিত বক্তা হিসেবে রাখা বক্তব্যে, আগস্ট ২০১২]

জ্ঞানের ভিত্তি হলো মহান আল্লাহর প্রতি ভয়

​”জ্ঞানের ভিত্তি হলো মহান আল্লাহর প্রতি ভয় (তাকওয়া)।”

— ইমাম আহমাদ ইবনে হাম্বল (রাহিমাহুল্লাহ)

আমি তিরিশ বছর ব্যয় করেছি আদব শিখতে এবং বিশ বছর ব্যয় করেছি জ্ঞানার্জনে

poir

“আমি তিরিশ বছর ব্যয় করেছি আদব শিখতে এবং বিশ বছর ব্যয় করেছি জ্ঞানার্জনে।”
— আব্দুল্লাহ বিন মুবারাক (রাহিমাহুল্লাহ) [৭৩৬-৭৯৬]

সেই ব্যক্তির কাছ থেকে দূরে থাকুন যে ভালোবাসে তার মতামত সবাই অনুসরণ করুক

ripples

“সেই ব্যক্তির কাছ থেকে দূরে থাকুন যে ভালোবাসে তার মতামত সবাই অনুসরণ করুক, যে পছন্দ করে তার অভিমত সবাই জানুক এবং তা ছড়িয়ে যাক।”
— ইমাম সুফিয়ান আস সাওরি (রাহিমাহুল্লাহ)

জ্ঞান হচ্ছে সূর্যের মতন, তা থেকে উৎসারিত আলো হচ্ছে সুন্দর চরিত্র

imam suhaib webb

জ্ঞান হলো সূর্যের মত, তা থেকে উৎসারিত আলো সুন্দর চরিত্র।
— ইমাম সুহাইব ওয়েব

জ্ঞানের সৌন্দর্য ও গুরুত্ব কেবলমাত্র এই কারণে যে

“জ্ঞানের সৌন্দর্য্য ও গুরুত্ব কেবলমাত্র এই কারণে যে, এটা একজন ব্যক্তিকে আল্লাহকে ভয় ও তাঁর আনুগত্য করতে শেখায়। তা না হলে এটা অন্যান্য স্বাভাবিক বিষয়ের মত।”

–– সুফিয়ান আস-সাওরি (রাহিমাহুল্লাহ)

courtesy : QuranerAlo

এই দুনিয়াতে কল্যাণময় হচ্ছে জ্ঞানার্জন ও আল্লাহর ইবাদাত করা

namaz

“এই দুনিয়াতে কল্যাণময় হচ্ছে জ্ঞানার্জন ও আল্লাহর ইবাদাত করা
এবং আখিরাতে কল্যাণময় হচ্ছে জান্নাত”।
—- হাসান আল বাসরি (রাহিমাহুল্লাহ)

জ্ঞানার্জন ও ধৈর্যধারণ

“জ্ঞানার্জন ছাড়া দিক-নির্দেশনা অর্জন করা যায় না।
আর ধৈর্যধারণ ছাড়া সঠিক পথের দিশা অর্জন করা যায়না।”

– ইমাম ইবনে তাইমিয়া (রহিমাহুল্লাহ)
[মাজমু’আল ফাতাওয়া : ভলিউম ১০/৪০]